default-image

করোনায় সংক্রমিতদের চিকিত্সার জন্য স্থাপিত কুমিল্লা কোভিড-১৯ হাসপাতালে আজ বুধবার ভোর পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় উপসর্গ নিয়ে আরও ছয়জন মারা গেছেন। মৃত ব্যক্তিদের মধ্যে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের দুজন, চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার দুজন এবং চৌদ্দগ্রাম ও বুড়িচং উপজেলার একজন করে। তাঁরা সবাই পুরুষ। তাঁদের বয়স ৫০ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে। হাসপাতালের তথ্য শাখার সহকারী সার্জন মুক্তা রানী ভূঁইয়া আজ সকাল সাড়ে আটটায় প্রথম আলোকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার রাত ১২ টা ১০ মিনিটে মারা যান কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের জাঙ্গালিয়া এলাকার ৬০ বছরের একজন এবং একই এলাকার ৫০ বছরের একজন রাত নয়টায় মারা যান। রাত আটটা ২০ মিনিটে মারা যান চাঁদপুরের শাহরাস্তি এলাকার ৭৫ বছরের এক বৃদ্ধ। হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) মারা গেছেন তিনজন। এর মধ্যে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ৮০ বছরের এক বৃদ্ধ রাত ১১ টায়, চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার ৬৫ বছরের একজন গতকাল সকাল ১০ টায় এবং কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার রামপুর এলাকার ৬৫ বছরের একজন সকাল সাড়ে আটটায় মারা গেছেন।

হাসপাতালের তথ্য শাখা সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে কোভিড হাসপাতালে ১০৫ জন রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে কোভিড রোগী ৩৪ জন ও উপসর্গ নিয়ে আছেন ৭১ জন। আজ বুধবার নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ২২ জন। এ হাসপাতালে গত ৩ জুন থেকে আজ পর্যন্ত ৭৯৫ জন ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে সেবা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৩৯ জন। এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১৫৩ জন। করোনায় ২৬ জন এবং উপসর্গ নিয়ে ১২৭ জনের মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের পরিচালক চিকিত্সক মো. মুজিবুর রহমান বলেন, ‘জ্বর, সর্দি, কাশি, শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন জটিল রোগীরা এখানে আসেন। একেবারেই শেষ পর্যায়ে (সংকটাপন্ন অবস্থায় ) তাঁরা আসেন। ’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0