default-image

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পের ১ হাজার ৬৫৫ কোটি ৫০ লাখ টাকার ভূমি উন্নয়ন ও ভৌত কাজগুলো করবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে ঢাকা সেনানিবাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মো. আবু তাহের ও সেনাবাহিনীর পক্ষে প্রকল্প পরিচালক লে. কর্নেল মোহাম্মদ আলী সমঝোতা চুক্তিতে সই করেন। ২০২৩ সালের অক্টোবরে ওই প্রকল্প শেষ হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বলছেন, সেনাবাহিনী প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করলে টেন্ডারবাজি ঠেকানোর পাশাপাশি কাজের গুণগতমানও নিশ্চিত করা যাবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মো. আবু তাহের প্রথম আলোকে বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে চুক্তি করার সময় সেনাবাহিনীর পক্ষে ২৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্রিগেডের ইঞ্জিনিয়ার ইন চিফ মেজর জেনারেল ইবনে ফজল শায়েখুজ্জামান ও ২৪ ব্রিগেডের ডিজি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জাকারিয়া উপস্থিত ছিলেন। অন্যদিকে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে উপাচার্য এমরান কবির চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ মো. আসাদুজ্জামান, শিক্ষক সমিতির সভাপতি শামীমুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন, কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি জিনাত আমান ও সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

উপাচার্য এমরান কবির চৌধুরী বলেন, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়কে আধুনিক ও বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয় করার জন্য ২০০ একর জমি অধিগ্রহণ ও নানা ধরনের স্থাপনা তৈরির লক্ষ্যে সরকার ১ হাজার ৬৫৫ কোটি ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোর ওই কাজ শেষ করবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালই ওই কাজ সেনাবাহিনীর মাধ্যমে সম্পাদন করার জন্য নির্দেশ দেন। ফলে কাজের গুণগত মান ঠিক থাকবে। নির্ধারিত সময়ে প্রকল্পের কাজ শেষ হবে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন