default-image

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়ে টেলিফোন এক্সচেঞ্জ কার্যালয়ের এক কর্মচারীর মৃত্যু হয়েছে। তাঁর নাম মো. শাহাব উদ্দিন। তিনি উপজেলা টেলিফোন এক্সচেঞ্জ কার্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

আজ সোমবার করোনা প্রতিরোধ কমিটির পক্ষ থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এ নিয়ে কুলিয়ারচর উপজেলায় করোনায় দুজনের মৃত্যু হলো।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, শাহাব উদ্দিনের (৫৫) বাড়ি একই উপজেলার ছয়সূতি ইউনিয়নের বড় ছয়সূতি গ্রামে। ১০ দিন ধরে জ্বর ও সর্দিতে ভুগছিলেন। ৮ জুলাই জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজে নমুনা দেন। করোনা পজিটিভ তথ্যটি জানতে পারেন শুক্রবার। কিশোরগঞ্জ জেলা সদরে অবস্থিত সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন শনিবার। গতকাল রোববার রাতে তাঁর মৃত্যু হয়।

উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্যসচিব ও স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওমর খসরু বলেন, শাহাব উদ্দিনের বাড়ি কুলিয়ারচরে। কিন্তু তিনি পরীক্ষা করিয়েছেন পার্শ্ববর্তী উপজেলা থেকে। ফলে নথিতে নাম ছিল না। তাই তথ্য পেতে সময় লেগে যায়। জানার পর তাঁকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। কিন্তু ততক্ষণে তাঁর শারীরিক অবস্থা ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছিল।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন