বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, কুষ্টিয়ার মানুষ অত্যন্ত অসাম্প্রদায়িক। জেলার সব মণ্ডপে শান্তিপূর্ণভাবে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এখন পর্যন্ত কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবুও প্রশাসন সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) খাইরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘বুধবার রাত থেকে জেলার সবগুলো মন্দিরে নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হয়েছে। গত রাত থেকেই অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ শীর্ষ কর্মকর্তা কেউই ঘুমাননি। ইউপি (ইউনিয়ন পরিষদ) চেয়ারম্যান থেকে শুরু করে ইউপি সদস্য ও গ্রামপুলিশকে মণ্ডপে কড়া নজরে রাখতে বলা হয়েছে। আমি নিজেও রাতে বের হচ্ছি। আশা করা যাচ্ছে শান্তিপূর্ণভাবে দুর্গোৎসব শেষ হবে।’

কুষ্টিয়া জেলা পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের সভাপতি ও কুষ্টিয়া আদালতের সরকারি কৌঁসুলি অনুপ কুমার নন্দী বলেন, প্রশাসনের ভূমিকা খুবই ভালো। স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) মাহবুব উল আলম হানিফও জেলার বিভিন্ন মন্দির ঘুরে তদারকি করছেন। আশা করা যাচ্ছে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই আয়োজন শেষ হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন