default-image

এক প্রার্থীর হয়ে ভোটারদের তেল দিতে গিয়েছিলেন এক কর্মী। তেলসহ ওই কর্মীকে ধরে পুলিশে দেন স্থানীয় জনতা। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাঁকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। গতকাল রোববার রাত ১১টার দিকে কুষ্টিয়া পৌরসভার বারখাদা ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

দণ্ডপ্রাপ্ত রিয়াজুল ইসলাম ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী রবিউল ইসলামের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য। রবিউল কাউন্সিল পদে বোতল প্রতীকে নির্বাচন করছেন। রিয়াজুল বারখাদা পূর্বপাড়া এলাকায় মৃত শুকুর আলী ছেলে। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন কুষ্টিয়া সদরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সবুজ হাসান।

বিজ্ঞাপন

ভ্রাম্যমাণ আদালত ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ১৬ জানুয়ারি কুষ্টিয়া পৌরসভার নির্বাচনে ভোট গ্রহণ হবে। বারখাদা ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী রবিউল ইসলাম বোতল প্রতীকে অংশ নিচ্ছেন। গতকাল রাতে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে তাঁর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্যদের দিয়ে এলাকার নারী ভোটারদের মাঝে তেলের বোতল বিতরণ করছেন। রাত ৯টার দিকে রিয়াজুল নারকেল তেলের বোতল বিতরণ করতে গেলে এলাকাবাসী তাঁকে হাতেনাতে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেন।

কুষ্টিয়া সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সবুজ হাসান প্রথম আলোকে বলেন, রিয়াজুল ইসলাম পৌরসভা নির্বাচন আচরণ বিধিমালা ২০১৫–এর ১৭(ক) ধারা লঙ্ঘন করেছেন। এ কারণে তাঁকে দণ্ড দেওয়া হয়েছে। আর তাঁর কাছ থেকে ১৭৪ বোতল নারকেল তেলের বোতল জব্দ করা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন