কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহ চালু

বিজ্ঞাপন
default-image

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ১২টি শয্যায় সেন্ট্রাল (কেন্দ্রীয়) অক্সিজেন সরবরাহ চালু হয়েছে। কোভিড রোগীরা যাতে অক্সিজেন সমস্যায় না পড়েন, সে কারণে একই সঙ্গে সেখানে দুটি উচ্চ ক্ষমতার অক্সিজেন যন্ত্র হাই ফ্লো নাজাল ক্যানুলা মেশিন (এইচএফএনসি) স্থাপন করা হয়েছে। রোববার বিকেলে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের সাংসদ মাহবুব উল আলম হানিফ এর উদ্বোধন করেন।

জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন প্রথম আলোকে, জেলা করোনা প্রতিরোধ তহবিলের অর্থায়নে হাই ফ্লো নাজাল ক্যানুলা মেশিন দুটি কিনে হাসপাতালে দেওয়া হয়েছে। এতে করোনা রোগীদের জন্য ভালো হবে।

জেনারেল হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত এপ্রিল মাস থেকে জেনারেল হাসপাতালের সামনে আরপিটিআই হোস্টেলে রেখে কোভিড রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। সেখানে গড়ে প্রতিদিন ৪০ জন চিকিৎসা নিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার হোস্টেল থেকে স্থানান্তর করে রোগীদের জেনারেল হাসপাতালের পেয়িং বেডের ওয়ার্ডে নেওয়া হয়েছে। পেয়িং ওয়ার্ডে ৩৪টি শয্যা রয়েছে। সেখানে ১২টি শয্যায় এক মাস ধরে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহ লাইন স্থাপনের কাজ চলে। বর্তমানে করোনা ইউনিটে ৩২ জন রোগী ভর্তি আছেন।

করোনা ইউনিটের দায়িত্বে থাকা কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের জ্যেষ্ঠ মেডিসিন বিশেষজ্ঞ এ এস এম মুসা কবির প্রথম আলোকে বলেন, উচ্চ ক্ষমতার অক্সিজেন যন্ত্র হাই ফ্লো নাজাল ক্যানুলা মেশিন স্থাপনের ফলে ভেল্টিনেশন ছাড়া সর্বোচ্চ অক্সিজেন সেবা দেওয়া যাবে। ফলে ক্রিটিক্যাল (গুরুতর) রোগীদের জীবন রক্ষা করা সম্ভব হবে।

গত পাঁচ মাস করোনা ইউনিটে সেবা দিয়ে আসা এই চিকিৎসক মনে করেন, এ রকম যন্ত্র আশপাশের কয়েকটি জেলার মধ্যে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালেই প্রথম স্থাপন করা হলো। আরও স্থাপন করা হলে আশা করা যাচ্ছে এতে করোনায় মৃত্যুহার অনেকাংশে কমবে। করোনাকালে বেসরকারি উদ্যোগেও যে কেউ হাসপাতালকে এসব যন্ত্র দিতে পারেন। সেটা খুবই ভালো হয়।

কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন বলেন, এ ধরনের যন্ত্রের অভাবে অনেক রোগীরই মৃত্যু হচ্ছে। কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের সাংসদ মাহবুব উল আলম হানিফ ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দুটি করে যন্ত্র হাসপাতালকে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন। অচিরেই সেগুলো স্থাপন করা হবে। রোগীরা এখন থেকে এই যন্ত্রের সুবিধা পাবেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন