বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সংগঠন সূত্র জানায়, ২০১৭ সালের ১৫ মে আশরাফুজ্জামান সুজনকে আহ্বায়ক করে ২১ সদস্যবিশিষ্ট শহর যুবলীগের কমিটি অনুমোদন করে কেন্দ্রীয় যুবলীগ। তিন মাস মেয়াদের এই কমিটিকে ওয়ার্ড কমিটি করে শহর কমিটির সম্মেলন করতে বলা হয়। কিন্তু তিন বছর পেরিয়ে গেলেও কোনো সম্মেলন করতে পারেনি।

এদিকে এই সময়ে কমিটির আহ্বায়ক আশরাফুজ্জামানের বিরুদ্ধে টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ থেকে শুরু করে নানা অনিয়মে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ ওঠে। সম্প্রতি জাতীয় পরিচয়পত্র জালিয়াতি করে শহরের একাধিক স্থানে জমি ও বাড়ি দখলের অভিযোগ ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। এসব অভিযোগের কারণে কমিটি বিলুপ্ত করা হয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে।

জেলা যুবলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম বলেন, দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গ ও গঠনতন্ত্রবিরোধী কাজে লিপ্ত থাকায় শহর যুবলীগের কমিটি কেন্দ্র থেকে বিলুপ্ত করা হয়েছে। দলীয় সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান স্বাক্ষরিত এক পত্রের মাধ্যমে বিষয়টি জানানো হয়।

উল্লেখ্য, আশরাফুজ্জামান বিএনপি আমলে ছাত্রদল করতেন। ওয়ার্ড ছাত্রদলের সভাপতি ছিলেন তিনি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন