default-image

কুড়িগ্রাম পৌরসভার গোডাউন কামারপাড়া এলাকায় এক বাড়িতে সেপটিক ট্যাংকের সাটার খোলার পর বিষক্রিয়ায় রতন মিয়া (৩২) নামের এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে কুড়িগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ওই শ্রমিককে উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কুড়িগ্রাম ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক মনোরঞ্জন সরকার বলেন, শহরের কামারপাড়া গ্রামের পশু চিকিৎসক ওয়াজেদ মিয়ার ছেলে মামুনের বাড়ির সেপটিক ট্যাংকের সাটার খুলে নিচে নামে শ্রমিক রতন মিয়া। এ সময় বিষক্রিয়ায় তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁকে রশি দিয়ে টেনে তোলার পর কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিসৎক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা পুলক কুমার সরকার বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই রতন মিয়া মারা গেছেন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন