default-image

ঘন কুয়াশায় সাড়ে ৬ ঘণ্টা বন্ধের পর মাদারীপুরের বাংলাবাজার ও মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টা থেকে এ নৌপথে নৌযান চলাচল স্বাভাবিক হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত তিনটা থেকে এ নৌপথে বন্ধ ছিল ফেরি চলাচল।

একই কারণে শুক্রবার ভোর থেকে এই নৌপথে বন্ধ ছিল লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল। কুয়াশা কমতে শুরু করলে সকাল ৯টার পর লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল স্বাভাবিক হয়। কর্মচাঞ্চল্যতা ফিরে আসে নৌপথে।

এদিকে টানা সাড়ে ৬ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় উভয় ঘাটে আটকা পড়েছে অন্তত ৮ শতাধিক যানবাহন। এতে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন এই নৌপথে আসা যাত্রী ও পরিবহনশ্রমিকেরা।

বিজ্ঞাপন

বিআইডব্লিউটিসি ঘাট কর্তৃপক্ষ জানায়, বৃহস্পতিবার রাত ২টার পর এই নৌপথে কুয়াশা পড়তে শুরু করে। রাত গভীর হওয়ার সঙ্গে কুয়াশার মাত্রাও বেড়ে যায়। ফলে নৌপথের সব দিকনির্দেশনামূলক বাতি ঝাপসা হয়ে আসে। পরে নৌপথে দুর্ঘটনা এড়াতে রাত তিনটার পর থেকে সব ফেরি চলাচল বন্ধ রাখে ঘাট কর্তৃপক্ষ। টানা সাড়ে ছয় ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পর শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কুয়াশা কমে এলে পুনরায় শুরু হয় ফেরি চলাচল। এ সময় উভয় ঘাটে আটকা পড়েছে যাত্রীবাহী বাসসহ আট শতাধিক যানবাহন।

লঞ্চঘাট সূত্রে জানা গেছে, সকাল নয়টা থেকে লঞ্চ চলাচল শুরু করেছে। এর আগে শুক্রবার ভোর থেকে লঞ্চগুলোতে যাত্রী উঠিয়ে ঘাটেই অপেক্ষা করা হচ্ছিল কুয়াশা কমার জন্য।

বিআইডব্লিউটিসির বাংলাবাজার ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক জামিল হোসেন বলেন, ‘সকাল সাড়ে নয়টা থেকে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। এখন আমাদের চলাচলরত সব কটি ফেরি চলছে। টানা কয়েক ঘণ্টা বন্ধ থাকায় পাড়ে ও সংযোগ সড়কে বেশ কিছু যানবাহন আটকা পড়েছে। যানবাহনগুলো আমরা পর্যায়ক্রমে ফেরিতে পারাপার করব।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন