বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার (৫ জানুয়ারি) হিরণ ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনের পরের দিন বৃহস্পতিবার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে পরাজিত সদস্য প্রার্থী মুসা বিশ্বাসের সমর্থকেরা জয়ী সদস্য প্রার্থী জাকির দাড়িয়ার সমর্থকদের ওপর হামলা চালান। হামলায় জামাল শেখ (৬৫), জেহাদুল শেখ (৪০), মন্টু শেখ (৫৫), লায়েক শেখ (৫৫), রিপন শেখ (৩০), রেক্সনা বেগম (৩০), হাসিবুর শেখ (২৫) ও সাইয়াদুল ইসলাম (৩২) আহত হন।

আহত ব্যক্তিদের কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। সেখানে জামাল শেখের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার বিকেলে তাঁর মৃত্যু হয়।

নিহত জামাল শেখের ভাই সিরাজুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনের পরের দিন পরাজিত মেম্বার প্রার্থী মুসা বিশ্বাস লোকজন নিয়ে তাঁদের ওপর হামলা চালান। এই হামলায় তাঁর ভাই নিহত হয়েছেন।

জয়ী সদস্য প্রার্থী জাকির দাড়িয়া বলেন, নির্বাচনে পরাজিত হয়ে প্রতিপক্ষ মুসা বিশ্বাসের লোকজন তাঁর সমর্থকদের মারধর ও বাড়িঘরে হামলা চালিয়েছে। তাদের মারধরে জামাল শেখ নামের এক সমর্থক নিহত হয়েছেন। তিনি এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

এ বিষয়ে জানার জন্য মুসা বিশ্বাসের বাড়িতে গিয়ে তাঁকে পাওয়া যায়নি। তাঁর মুঠোফোনটিও বন্ধ পাওয়া যায়।

কোটালীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিল্লুর রহমান বলেন, নিহত জামাল শেখের পরিবারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন