রাজশাহীতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের বিভাগীয় সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। আজ মঙ্গলবার বিকেলে
রাজশাহীতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের বিভাগীয় সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। আজ মঙ্গলবার বিকেলেছবি: শহীদুল ইসলাম

‘কোথাকার কোন শাজাহান, চাঁদাবাজ শাজাহান, সে রিকমেন্ডেশন করল আর তোমরা উঠায়া নিলা, আর বাংলাদেশের মানুষ মাইনা নিল। জিয়াউর রহমানের কিছু আসে–যায় না, বাংলাদেশের মানুষেরও কিছু আসে–যায় না।’

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ‘বীর উত্তম’ খেতাব বাতিলের জন্য শাজাহান খানের প্রস্তাব প্রসঙ্গে আজ মঙ্গলবার রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশের প্রধান অতিথি বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ এ মন্তব্য করেন।

রাজশাহী নগরের পাঠানপাড়া এলাকায় অবস্থিত একটি কমিউনিটি সেন্টারের প্রাঙ্গণে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ইকবাল হাসান মাহমুদ প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান বীর উত্তম উপাধি বাংলার জনগণকে মুক্ত করার জন্য, তাঁর কর্মের জন্যই পেয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন
default-image

ইকবাল হাসান মাহমুদ বলেন, ‘বীর উত্তম ইজ অলয়েজ বীর উত্তম। সারা জীবন বীর উত্তম, পৃথিবী যত দিন থাকবে—বীর উত্তম। দেখেন ভবিষ্যতে জিয়াউর রহমানকে ‘‘বীরশ্রেষ্ঠ’’ উপাধি দেওয়া যায় কি না।’ তিনি বলেন, ‘জিয়াউর রহমান কারও করুণায় বীর উত্তম উপাধি পায় নাই। বাংলার জনগণকে মুক্ত করার জন্য তাঁর কর্মের জন্য পেয়েছিলেন।’

৯ ফেব্রুয়ারি জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের (জামুকা) ৭২তম সভায় প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ‘বীর উত্তম’ খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সাংসদ শাজাহান খান জামুকার সদস্য। এ ছাড়া তিনি মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন