বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

র‍্যাব জানায়, ১৪ মে সকালে চৌদ্দগ্রামের কুমারডোগা গ্রামের প্রয়াত আবদুল হাকিমের ছেলে ব্যবসায়ী মো. দেলোয়ার হোসেন এলাকায় মাদক ব্যবসায় বাধা দেন। এই সময় মাদক ব্যবসায়ীরা তাঁকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেন। দেলোয়ার হোসেনকে কুপিয়ে জখম করার পর মাদক ব্যবসায়ীরা হিন্দি ‘লুঙ্গি ড্যান্স’ গানের তালে নেচে ব্যাপক উল্লাস করেন। এই দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই সাতজনের নাম উল্লেখ করে চৌদ্দগ্রাম থানায় মামলা করেন দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী আয়েশা আক্তার।

দেলোয়ার হোসেনকে কুপিয়ে জখম করার পর মাদক ব্যবসায়ীরা হিন্দি ‘লুঙ্গি ড্যান্স’ গানের তালে নেচে ব্যাপক উল্লাস করেন। এই দৃশ্য ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

এরপর র‍্যাব-১১, সিপিসি-২-এর একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল গভীর রাতে কুমারডোগা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেনকে হত্যাচেষ্টার পর গানের তালে উল্লাসকারী মো. রাসেল (২৫) ও মো. শাহজালালকে (৩৫) গ্রেপ্তার করা হয়। মো. শাহজালাল মামলার এজাহার নামীয় প্রধান আসামি। মো. শাহজালাল ওই গ্রামের প্রয়াত সিরাজ মিয়ার ছেলে এবং মো. রাসেল (২৫) একই গ্রামের আবদুর রশিদের ছেলে।

র‍্যাব-১১ কুমিল্লার কোম্পানি অধিনায়ক বলেন, গ্রেপ্তার দুই আসামিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করে ও অনুসন্ধানে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ তাঁরা মাদক ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। মাদক ব্যবসায় বাধা দেওয়ায় দেলোয়ার হোসেনকে তাঁরা হত্যা করার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে জখম করেন। র‍্যাব এই ধরনের দুষ্কৃতকারীদের গ্রেপ্তারে বদ্ধপরিকর।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন