বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

টিপু সুলতানকে লেখা বহিষ্কারপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘আপনার বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলার পরিপন্থী সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার সুস্পষ্ট অভিযোগ আছে। তদন্ত করে বিএনপির গঠনতন্ত্র মোতাবেক আপনাকে দলের প্রাথমিক সদস্যপদসহ সব পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হলো।’

এ ব্যাপারে টিপু সুলতান বলেন, ‘আমি বহিষ্কারপত্র এখনো হাতে পাইনি। গতকাল ফেসবুকে দেখেছি। আমি কেন একজন প্রবীণ বিএনপি নেতাকে কোপাতে যাব? আমার বিরুদ্ধে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম ষড়যন্ত্র করছেন।’

এ অভিযোগের বিষয়ে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. মনিরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘একজন ৬৫ বছর বয়স্ক বিএনপি নেতাকে কোপানো হয়েছে। এ জন্য তাঁকে লোহাগড়া উপজেলা বিএনপির পদ থেকে অব্যাহতি দিই। কেন্দ্রীয় বিএনপি তদন্ত কমিটি গঠন করে ঘটনার সত্যতা পায়। এর ভিত্তিতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে তাঁকে কেন্দ্রীয় বিএনপি বহিষ্কার করেছে। নিজেকে বাঁচাতে আমার বিরুদ্ধে তিনি অমূলক কথা বলছেন।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন