বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এদিকে মশিউর রহমান ও তাঁর কর্মী-সমর্থকেরা আবদুর রশিদকে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে দিচ্ছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে। আজ বিকেল চারটায় ক্ষেতলাল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে আবদুর রশিদ বকুল এ অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, গত ৩১ অক্টোবর রাতে তাঁর কর্মী-সমর্থকের পাঁচটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর ও একটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা করার পর থেকে মশিউর রহমানের লোকজন তাঁকে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে দিচ্ছেন না। এ ছাড়া তাঁর কর্মী-সমর্থকদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

default-image

আজ সকালে মশিউর রহমানের কর্মীর মোটরসাইকেলে আগুন প্রসঙ্গে আবদুর রশিদ বলেন, মশিউর রহমান ও তাঁর লোকজন নিজেরাই মোটরসাইকেল পোড়ানোর নাটক সাজিয়ে তাঁর কর্মী-সমর্থকদের ওপর দোষ চাপানোর চেষ্টা করছেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি প্রশাসনের কাছে শঙ্কাবিহীন নির্বাচনের পরিবেশের দাবি জানান।

ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নীরেন্দ্রনাথ মণ্ডল প্রথম আলোকে বলেন, বেলতা-বানদীঘি গ্রামের মোড় থেকে পুড়িয়ে দেওয়া একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন