default-image

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সরকারি নির্দেশনায় ১৪ এপ্রিল থেকে সারা দেশে এক সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউন শুরু হচ্ছে। এক সপ্তাহ শেষে এ লকডাউন বাড়ানো হতে পারে—এমন শঙ্কায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আজ সোমবার সকাল থেকে সব বাণিজ্যিক ব্যাংকে টাকা উত্তোলনে ব্যস্ত ছিলেন গ্রাহকেরা। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে নয়টা থেকে সব কটি ব্যাংকের শাখায় গ্রাহকদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে।

এর মধ্যে অনেক নারী গ্রাহককেও ব্যাংকের শাখায় দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে টাকা উত্তোলন করতে দেখা গেছে। গ্রাহকেরা টাকা উত্তোলন করে আবার কাঁচাবাজার ও মুদি দোকানে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী কিনতে ভিড় করেন। এদিকে, মুদি দোকানগুলোয় ঈদের আগের বেচাকেনা শুরু হয়ে গেছে।

এক সপ্তাহ শেষে কঠোর লকডাউন আরও বাড়ানো হতে পারে—এমন শঙ্কায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আজ সোমবার সকাল থেকে সব বাণিজ্যিক ব্যাংকে টাকা উত্তোলনে ব্যস্ত ছিলেন গ্রাহকেরা।

সোনালী ব্যাংক শমশেরনগর শাখার ব্যবস্থাপক সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার রিপন মজুমদার, পূবালী ব্যাংক শমশেরনগর শাখা ব্যবস্থাপক আবুল খায়ের মোহাম্মদ ইকবাল, পূবালী ব্যাংক কমলগঞ্জ শাখার ব্যবস্থাপক আবদুল হামিদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, লকডাউনের চিন্তায় গ্রাহকেরা ব্যাংক থেকে টাকা তুলছেন। টাকা তুলে আবার খাদ্য মজুতে বেশি করে পণ্য কিনে রাখছেন। গতকাল ব্যাংকগুলোয় যেভাবে ভিড় ছিল, আজও তেমনই ভিড় লক্ষ করা যায়। গ্রাহকেরা যতক্ষণ ব্যাংকের ভেতর থাকবেন, ততক্ষণ লেনদেন চালু রাখতে হবে বলে জানান তাঁরা।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন