বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উপজেলা প্রশাসন ও কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, আজ সকাল সাতটায় আমিন খান নদীতে খননযন্ত্রের সাহায্যে বালু উত্তোলন করতে যান। এ সময় পাইপে প্যাঁচানো অবস্থায় অজগর সাপটিকে দেখতে পান। পরে তিনি আরেকজনের সাহায্য নিয়ে সাপটিকে উদ্ধার করেন। সাপটি অন্তত ৯ ফুট লম্বা ও ওজন প্রায় ১০ কেজি। অজগর সাপ আটকের খবর মুহূর্তেই এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে শত শত লোক জড়ো হয় ওই স্থানে।

পরে স্থানীয় লোকজন উপজেলা ও থানা–পুলিশকে অজগরটি আটকের খবর দেন। দুর্গাপুর বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. সাইদুর রহমান সাপটিকে উদ্ধার করে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ে নিয়ে আসেন। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দুর্গাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাজীব উল আহসানের নির্দেশে দুপুর সাড়ে ১২টায় সাপটিকে স্থানীয় গোপালপুর পাহাড়ে অবমুক্ত করা হয়।

ইউএনও রাজীব উল আহসান বলেন, দুর্গাপুর উপজেলাটি সীমান্তের কাছে। ধারণা করা হচ্ছে ভারতের কোনো জঙ্গল থেকে খাবারের জন্য সাপটি এই এলাকায় এসেছে। গত তিন মাস আগেও দুটি অজগর সাপ সোমেশ্বরী নদীর তীরে এসে লোকজনের হাতে আটকা পড়ে। পরে তা উদ্ধার করে পাহাড়ি জঙ্গলে অবমুক্ত করা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন