বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘যারা দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে, যারা দেশের আইন, পবিত্র সংবিধানকে শ্রদ্ধা করতে জানে না, যারা দেশকে ভালোবাসতে পারে না এবং জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনে যারা খুশি হয় না, তারা এ দেশের শান্তি-সমৃদ্ধির শত্রু। সেই সব অপশক্তি কোনোভাবে ষড়যন্ত্র করে বাংলাদেশবিরোধী রাজনীতি করবে, এটা আমরা কোনোভাবেই মেনে নেব না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যেকোনো অপশক্তি, সাম্প্রদায়িক শক্তিকে আমরা অতীতে মোকাবিলা করেছি, ভবিষ্যতেও করব।’

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘দুর্নীতিবাজ, বোমাবাজ হাওয়া ভবনের সেই কুখ্যাত সন্ত্রাসীরা যেকোনো উপায়ে দেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা অবৈধভাবে দখল করতে ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে।’ এ জন্য তিনি দলীয় নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান।
সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ।

দুপুর থেকেই বরিশালের বিভিন্ন এলাকা থেকে মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে যোগ দেন দলীয় নেতা-কর্মীরা। দুপুর গড়াতেই পুরো এলাকা লোকারণ্য হয়ে যায়।

সমাবেশে বাহাউদ্দিন নাছিম আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগ মনে করে, জনগণই আমাদের একমাত্র শক্তি। জনগণের আস্থায়, জনগণের সমর্থনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। ষড়যন্ত্রকারীরা বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে প্রতিহত করতে পারবে না। যারা বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটাতে চায়, যারা হিন্দু-মুসলমানদের মধ্যে দাঙ্গা-হাঙ্গামা করে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে চায়, এখন তারাই আবার খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি শুরু করেছে।’

খালেদা জিয়াকে নিয়ে বিএনপি অপরাজনীতি করছে অভিযোগ করে বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘আমরা অপরাজনীতি করি না। শেখ হাসিনা মানবতার মা বলেই খালেদা জিয়া বাসায় থাকেন, হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা করান। মানবিক কারণে তাঁর সাজা স্থগিত করে তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। তারপরও বিএনপি নেতারা অভিযোগ বরে বেড়াচ্ছেন খালেদা জিয়াকে বন্দী করে রাখা হয়েছে।’

সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আহমেদ, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য গোলাম রাব্বানী, আনিসুর রহমান, বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মো. ইউনুস, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন