দেবজ্যোতি সরকার বলেন, সকালে ঝড়ের কারণে বাসায় বিদ্যুৎ ছিল না। এ কারণে রাস্তার পাশের একটি নলকূপে ছেলে দীপকে নিয়ে গোসল করতে যান ঝুমা। নলকূপের দেয়াল ঘেঁষে পল্লী বিদ্যুতের একটি খুঁটি ছিল। একপর্যায়ে বিদ্যুৎ এলে বিকট শব্দে তার ছিঁড়ে মা-ছেলের ওপর পড়ে।

মা ও ভাইকে উদ্ধার করতে গিয়ে আহত হওয়া পূজা সরকারকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জামালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মো. আবদুন নাসের বলেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যাওয়া মা ও ছেলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের মহাব্যবস্থাপক সুজিত কুমার বিশ্বাস বলেন, এ ঘটনা তদন্তে সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের উপমহাব্যবস্থাপক (কারিগরি) মকবুল হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাঁরা কাজ শুরু করেছেন।