default-image

খুলনার রূপসা উপজেলায় দ্বিতীয় শ্রেণিপড়ুয়া এক শিশু (৮) ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ঘটনায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক ব্যক্তিকে উপজেলার নৈহাটি দক্ষিণপাড়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই শিশু বর্তমানে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান–স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) চিকিৎসাধীন।
সোমবার সন্ধ্যার পর ওই ঘটনা ঘটে। গ্রেপ্তার হওয়া ওই ব্যক্তির নাম ফজর মোল্লা ওরফে বাবু (৩৫)। তিনি উপজেলার জাবুসা গ্রামের মৃত হারেজ মোল্লার ছেলে। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে মঙ্গলবার মামলা করেছেন।

এ নিয়ে সেপ্টেম্বর মাসের শেষ তিন সপ্তাহে খুলনার চার উপজেলায় পাঁচটি ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেল। এর মধ্যে রূপসায় একটি, খালিশপুরে একটি, ডুমুরিয়ায় দুটি ও তেরখাদায় একটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ওই শিশুটি বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার একটি মহিলা মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী। করোনার কারণে মাদ্রাসা বন্ধ থাকায় কয়েক দিন আগে রূপসায় তার খালার বাড়িতে বেড়াতে আসে। সোমবার সন্ধ্যার পর শিশুটিকে ফুসলিয়ে নিজ বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন ফজর মোল্লা। পরবর্তী সময়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে রাতেই খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে শিশুটির প্রয়োজনীয় পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

রূপসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা জাকির হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, ‘শিশুটি খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অভিযুক্তকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

মন্তব্য পড়ুন 0