বিজ্ঞাপন

গত বছরের ১৯ মার্চ চুয়াডাঙ্গায় বিভাগের মধ্যে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে চলতি ৭ জুন পর্যন্ত ৪৪৬ দিনে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩৬ হাজার ৪১১ জনের। প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৮২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর গত চার দিনেই বিভাগে ২ হাজার ২৭৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। গত চার দিনে গড়ে শনাক্ত হয়েছে ৫৭০ জনের।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা-সংক্রান্ত দৈনিক প্রতিবেদন বিশ্লেষণে আরও দেখা গেছে, চলতি মাসের প্রথম ১১ দিনে (১-১১ জুন) ৪ হাজার ৩৯৮ জন শনাক্ত হয়। এ সময়ে মারা গেছেন ৫৬ জন। এর আগের ১১ দিনে (২১-৩১ মে) ১ হাজার ৫৫৩ জনের শনাক্ত হয়েছিল। ওই ১১ দিনে মারা যান ৪৪ জন। মোট শনাক্তের প্রায় ১২ শতাংশ শনাক্ত হয়েছে চলতি মাসে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে ১ হাজার ৭২৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫৯৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৪ দশমিক ৬৪ শতাংশ। আগের দিন শনাক্তের হার ৩৮ দশমিক ৯২ শতাংশ। খুলনা জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৩৭টি নমুনা পরীক্ষায় ১৫৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৫ দশমিক ৭ শতাংশ। আগের ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ছিল ২৯ দশমিক ৬১ শতাংশ।

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ফেরদৌসী আক্তার বলেন, মে মাসের মাঝামাঝি থেকে শনাক্ত বাড়ছে। সপ্তাহখানেক ধরে শনাক্তের সংখ্যা অনেক অনেক বেশি। সঠিকভাবে স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে সংক্রমণ বেড়ে পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে।

২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত রোগীদের মধ্যে খুলনায় রয়েছেন ১৫৬ জন (নগরে ১০৭ জন)। এ ছাড়া বাগেরহাটে ৫৫ জন, যশোরে ১২৮, সাতক্ষীরায় ১১১, নড়াইলে ৫১, মেহেরপুরে ১২, চুয়াডাঙ্গায় ২১, মাগুরায় ১৫, ঝিনাইদহে ৬ ও কুষ্টিয়ায় ৪৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন