default-image

খুলনা বিভাগে নতুন করে ২৩৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগে কোভিড–১৯ রোগীর সংখ্যা ৫ হাজার ৭৫১। বিভাগে সাতজন কোভিড–১৯ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১০০ তে।

আজ মঙ্গলবার খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) মো. মনজুরুল মুরশিদ এসব তথ্য জানান। অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য মতে, নতুন শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে খুলনা জেলার ৮৪ জন, সাতক্ষীরার ৪৯ জন, যশোরের ৫ জন, ঝিনাইদহের ২৪ জন, নড়াইলের ২৯ জন, কুষ্টিয়ার ৪৪ জন, চুয়াডাঙ্গার দুজন ও মেহেরপুরের দুজন আছে। বাগেরহাট ও মাগুরায় নতুন কোনো রোগী শনাক্ত হননি।

চুয়াডাঙ্গায় গত ১৯ মার্চ একজনের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এটি ছিল খুলনা বিভাগের প্রথম ঘটনা। ওই ঘটনার পর ৬ জুলাই ১১০তম দিনে বিভাগে রোগীর সংখ্যা সাড়ে ৫ হাজার ছাড়ায়।

অধিদপ্তরের দেওয়া হিসেবে, সংক্রমণ ও মৃত্যু—দুই সূচকেই বিভাগের মধ্যে খুলনার ধারে কাছে অন্য কোনো জেলা নেই। মোট সংক্রমিত ৫ হাজার ৭৫১ জনের মধ্যে ২ হাজার ৬১২ জনই খুলনা জেলার। যা বিভাগের মোট রোগীর প্রায় ৪৬ শতাংশ। এ ছাড়া বাগেরহাটে ২০২ জন, সাতক্ষীরায় ২৪৮ জন, যশোরে ৭৫৫ জন, ঝিনাইদহে ৩১৯ জন, মাগুরায় ১৬৯ জন, নড়াইলে ৩০৫ জন, কুষ্টিয়ায় ৭৮৯ জন, চুয়াডাঙ্গায় ২৫৮ জন ও মেহেরপুরে ৯৪ জন করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন।

বিভাগে এখন পর্যন্ত ১০০ জন কোভিড–১৯ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে খুলনারই ৩৮ জন। এর বাইরে যশোরে ১৩ জন, কুষ্টিয়ায় ১৫ জন, নড়াইলে ৭ জন, মাগুরায় ৬ জন, মেহেরপুর ও ঝিনাইদহে ৫ করে, সাতক্ষীরা ও বাগেরহাটে ৪ জন করে এবং চুয়াডাঙ্গায় ৩ জন মারা গেছেন। বিভাগের মোট মারা যাওয়া রোগীর ৩৮ শতাংশ খুলনার।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0