default-image

খুলনা বিভাগে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ থেকে সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা ২২ হাজার ছাড়িয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৭৩ জন সুস্থ ঘোষিত হয়েছেন। মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা এখন ২২ হাজার ৩৯। এই সময়ের মধ্যে নতুন করে ৩৬ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগে এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজার ৩০১। বিভাগে এ পর্যন্ত আক্রান্তের হিসাবে সুস্থতার হার ৯৪ দশমিক ৫৮ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যায়নি।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। বুধবার সকাল আটটা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল আটটা পর্যন্ত আসা নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে নতুন করে করোনা শনাক্ত ৩৬ জনের মধ্যে চুয়াডাঙ্গায় রয়েছেন ২ জন, যশোরে ১২ জন, ঝিনাইদহে ২ জন, খুলনায় ১০ জন, কুষ্টিয়ায় ৪ জন, মাগুরায় ২ জন ও নড়াইলে ৪ জন রয়েছেন। এই সময়ে বাগেরহাট, মেহেরপুর ও সাতক্ষীরায় কোনো রোগী শনাক্ত হয়নি।

জানতে চাইলে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক রাশেদা সুলতানা বলেন, এ বিভাগে শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার প্রায় ৯৫ শতাংশ। সংক্রমিত ব্যক্তিদের মধ্যে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৬ শতাংশ।

বিভাগে এ পর্যন্ত আক্রান্তের হিসাবে সুস্থতার হার ৯৪ দশমিক ৫৮ শতাংশ।
বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, বিভাগে এ পর্যন্ত খুলনা জেলায় সর্বোচ্চ ৬ হাজার ৭৪৪ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ ছাড়া যশোরে ৪ হাজার ১৮৫ জন, কুষ্টিয়ায় ৩ হাজার ৪৮০ জন, ঝিনাইদহে ২ হাজার ১১৮ জন, চুয়াডাঙ্গায় ১ হাজার ৫৩৬ জন, নড়াইলে ১ হাজার ৪৫০ জন, সাতক্ষীরায় ১ হাজার ১২০ জন, বাগেরহাটে ১ হাজার ১৪ জন, মাগুরায় ৯৭০ জন এবং মেহেরপুরে ৬৮৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র আরও জানায়, বিভাগে করোনা সংক্রমিত হয়ে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৪১১ জন। এর মধ্যে খুলনায় রয়েছেন ১০৩ জন, কুষ্টিয়ায় ৮০ জন, বাগেরহাটে ২৬ জন, চুয়াডাঙ্গায় ৩৭ জন, ঝিনাইদহে ৩৬ জন, যশোরে ৫০ জন, নড়াইলে ২০ জন, সাতক্ষীরায় ৩১ জন, মাগুরায় ১৩ জন এবং মেহেরপুরে ১৫ জন রয়েছেন।

মন্তব্য পড়ুন 0