খুলনা বিভাগে ৩৯ দিন পর শতকে নামল করোনা শনাক্ত

বিজ্ঞাপন
default-image

খুলনা বিভাগে গত ৩৯দিনের মধ্যে আজ শনিবার সবচেয়ে কম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার হিসাবে খুলনা বিভাগে নতুন করে ১০০ জন কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্য দিয়ে বিভাগে করোনা রোগীর মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ৬১১।
খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক রাশেদা সুলতানা আজ শনিবার এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাওয়া উপাত্ত অনুসারে, এর আগে গত ৪ আগস্ট ৫০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। ওই সময় থেকে শনিবার পর্যন্ত ৩৯ দিনে প্রতিদিন গড়ে ২০৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। চলতি সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম ১২ দিনে গড়ে প্রতিদিন ১৩৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্যমতে, বিভাগে নতুন করে ১০৪ জন সুস্থ হওয়ায় এখন পর্যন্ত মোট সুস্থতার সংখ্যা ১৬ হাজার ২৫৬। শনাক্ত বিবেচনায় বিভাগে সুস্থ হওয়ার হার প্রায় ৭৯ শতাংশ।
খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক রাশেদা সুলতানা জানান, বিভাগে নতুন সংক্রমিত ১০০ জনের মধ্যে বাগেরহাটে ৫ জন, চুয়াডাঙ্গায় ৯, যশোরে ২৬, ঝিনাইদহে ৫, খুলনায় ১৯, কুষ্টিয়ায় ১৬, মাগুরা ও মেহেরপুরে ৩ জন করে, নড়াইলে ১ এবং সাতক্ষীরায় ১৩ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

২৪ ঘণ্টায় বিভাগের মধ্যে খুলনা ও মেহেরপুরে ১ জন করে মোট ২ জন কোভিড রোগী মারা গেছেন। এ নিয়ে বিভাগে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩৫৮। এ পর্যন্ত মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে খুলনায় ৯৩ জন, কুষ্টিয়ায় ৬৪, যশোরে ৪২, চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহে ৩১ জন করে, সাতক্ষীরায় ৩০ জন, বাগেরহাটে ২২, মেহেরপুরে ১৪ জন, মাগুরায় ১৩ জন এবং নড়াইলে ১৮ জন রয়েছেন। বিভাগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৪ শতাংশ।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, বিভাগে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৬ হাজার ৫৪ জন, যশোরে ৩ হাজার ৬৪৬ জন এবং কুষ্টিয়ায় ৩ হাজার ৩০ জন রোগী শুধু খুলনা জেলায় শনাক্ত হয়েছেন। এই তিন জেলার মোট রোগী বিভাগের মোট রোগীর প্রায় ৬২ শতাংশ। এ ছাড়া ঝিনাইদহে ১ হাজার ৭৯৯, চুয়াডাঙ্গায় ১ হাজার ৩৪৬, নড়াইলে ১ হাজার ২৬২, সাতক্ষীরায় ১ হাজার ৭৭, বাগেরহাটে ৯৪৮, মাগুরায় ৮৭৩ এবং মেহেরপুরে ৫৭৬ জনের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন