খোলা জায়গায় বিক্রির অভিযোগে ট্রাকভর্তি গ্যাস সিলিন্ডার জব্দ

বিজ্ঞাপন
default-image

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের মালগুদাম এলাকা থেকে গ্যাস সিলিন্ডার ভর্তি একটি ট্রাক জব্দ করা হয়েছে। পাইপের মাধ্যমে অবৈধভাবে গ্যাস বিক্রির জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে—এমন অভিযোগ পেয়ে আজ সোমবার ভোরে ট্রাকটি জব্দ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)। তবে সিলিন্ডার পরিবহনের সঙ্গে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি প্রশাসন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জে একটি মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনা গ্যাস সরবরাহের পাইপের ছিদ্রের কারণে ঘটেছে বলে সেখানকার স্থানীয় ব্যক্তিরা ধারণা করছেন। বগুড়ায় উন্মুক্ত স্থানে অবৈধভাবে পাইপের মাধ্যমে গ্যাস বিক্রির অভিযোগ আছে। যেকোনো সময় এসব স্থানে বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে অনেকে আশঙ্কা করছেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইউএনওর কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, অবৈধভাবে গ্যাস বিক্রি বন্ধের জন্য ৫ সেপ্টেম্বর আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ বিন রশিদের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয় সান্তাহার মালগুদাম এলাকার ব্যবসায়ী ও পরিবহন শ্রমিক সংগঠন। অভিযোগে বলা হয়, সান্তাহার পৌর এলাকার বশিপুর মহল্লার বাসিন্দা মিজানুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে গভীর রাতে ট্রাকে সিলিন্ডার রেখে বিভিন্ন যানবাহনে অবৈধভাবে গ্যাস বিক্রি করে আসছেন। এমন অভিযোগ পাওয়ার পর আজ ভোরে অভিযান চালানোর সময় সিলিন্ডারভর্তি ট্রাকটি জব্দ করা হয়।

ইউএনও আবদুল্লাহ বিন রশিদ জানান, ট্রাকটিতে ১২টি গ্যাসভর্তি সিলিন্ডার ছিল। ট্রাকসহ সিলিন্ডার থানা হেফাজতে রেখে বিষয়টি বগুড়া পরিবেশ অধিদপ্তরকে জানানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় নিয়মিত মামলা হবে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জানা যায়, বগুড়ায় সিএনজি ফিলিং স্টেশন থেকে সিলিন্ডার ভর্তির পর ট্রাকে করে বিভিন্ন উন্মুক্ত স্থানে গ্যাস বিক্রি হয়। মূলত রাতে শহর জনমানবশূন্য হলে ট্রাকে রাখা সিলিন্ডার থেকে পাইপের মাধ্যমে অটোরিকশা, ব্যক্তিগত গাড়ি, মাইক্রোবাসসহ অন্যান্য যানবাহনে গ্যাস বিক্রি হয়। দূরত্ব ও খরচ এড়াতে যানবাহনের মালিকেরা ট্রাক থেকে গ্যাস সংগ্রহ করে থাকেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন