গাংনীতে মুয়াজ্জিনকে কুপিয়ে হত্যা

বিজ্ঞাপন
default-image

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার সাহেবনগর গ্রামে ছহির উদ্দীন (৬৫) নামের এক মুয়াজ্জিনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ বুধবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে গ্রামের মাদ্রাসা ও কবরস্থানের পাশে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ছহির উদ্দীন সাহেবনগর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি স্থানীয় সাহেবনগর কওমি মাদ্রাসা, কবরস্থান ও ঈদগাহের দেখভাল করতেন। এ ছাড়া তিনি মাদ্রাসার পাশের মসজিদের মুয়াজ্জিন ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
আজ বুধবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে সাহেবনগর গ্রামের কবরস্থানের পাশে কাজ করছিলেন ছহির উদ্দীন। এ সময় কালো মুখোশ পরা দুই ব্যক্তি ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আজ বুধবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে সাহেবনগর গ্রামের কবরস্থানের পাশে কাজ করছিলেন ছহির উদ্দীন। এ সময় কালো মুখোশ পরা দুই ব্যক্তি ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে গ্রামের মানুষ ঘটনাস্থলে আসেন। পরে তাঁদের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে আসে এবং ছহির উদ্দীনের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পুলিশ এখনো হামলাকারীদের আটক করতে পারেনি।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
ছহির উদ্দীনের মাথা, বুক, পিঠ, হাত, পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের কোপ রয়েছে। তাঁর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মেহেরপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
ওবাইদুর রহমান, ওসি, গাংনী থানা

এ বিষয়ে গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুর রহমান বলেন, ছহির উদ্দীনের মাথা, বুক, পিঠ, হাত, পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের কোপ রয়েছে। তাঁর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মেহেরপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ছহির উদ্দীন হত্যার ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন