গাছের ডালপালা কাটা নিয়ে বাগ্‌বিতণ্ডার জেরে একজনকে হত্যা

বিজ্ঞাপন
default-image

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের কাদিমাকাটা এলাকায় সড়কের পাশে লাগানো গাছের ডালপালা কাটা নিয়ে তর্কাতর্কির জেরে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
নিহতের নাম মোকতার আহমদ (৪৮)। তিনি কাদিমাকাটা এলাকার মৃত ছৈয়দ নূরের ছেলে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পেকুয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সনজিত চন্দ্র নাথ লাশ উদ্ধারের পর সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, নিহতের ডান হাতের কবজির ওপরে, বাঁ পায়ে ও কপালে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ছাড়া তাঁর অণ্ডকোষেও আঘাতের চিহ্ন আছে। ধারণা করা হচ্ছে, পেটানোর পর অণ্ডকোষ চেপে মোকতারের মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, মোকতার আহমদ আজ সকালে কাদিমাকাটা রাস্তার মাথা এলাকায় সড়কের পাশের কয়েকটি গাছ থেকে ডালপালা কাটতে যান। এ সময় বাধা দেন পার্শ্ববর্তী বাসিন্দা মোহাম্মদ রশিদ ও তাঁর স্ত্রী-সন্তানেরা। তাঁরা গাছের ডালপালা কাটতে নিষেধ করলে মোকতার আহমদের সঙ্গে তর্কাতর্কি হয়। একপর্যায়ে মোহাম্মদ রশিদ ও তাঁর স্ত্রী-সন্তানেরা মোকতারকে পেটানো শুরু করেন। মোকতার আহমদের হাতে-পায়ে আঘাতের পর মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তাঁর অণ্ডকোষ চেপে ধরা হয়। এরপর তাঁর মৃত্যু হয়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিহত মোকতার আহমদের ভাগনে আনিসুর রহমান অভিযোগ করেন, তাঁর মামা মোকতার আহমদের সঙ্গে জমিসংক্রান্ত বিষয়ে মোহাম্মদ রশিদ ও স্থানীয় কয়েকজনের বিরোধ রয়েছে। এ বিরোধের জের ধরে পরিকল্পিতভাবে তাঁর মামাকে মেরে ফেলা হয়েছে।
পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল আজম বলেন, হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মোহাম্মদ রশিদ ও তাঁর মেয়েকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ এখনো ঘটনার অনুসন্ধানে কাজ করছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন