default-image

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলায় নিখোঁজের এক দিন পর এক যুবকের লাশ ও নিজের ভাড়া বাসা থেকে অপর এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলার সফিপুর ও রতনপুর এলাকা থেকে লাশ দুটি উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন নওগাঁর পত্নীতলা থানার গোয়ালিয়া নাগরগোলা এলাকার আবুল কাশেমের ছেলে শাহানেওয়াজ (৩৫) ও দিনাজপুরের বিরল উপজেলার তেগুরা এলাকার ইরফান আলীর স্ত্রী আঞ্জুমান আরা (৪৫)।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২১ ফেব্রুয়ারি সকালে শাহনেওয়াজ বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে ওই দিন বিকেলে বাসা থেকে বের হন। এরপর তিনি নিখোঁজ ছিলেন, আর বাসায় ফিরে আসেননি। সোমবার সকালে উপজেলার রতনপুর এলাকার সামান উদ্দিনের বাড়ির পাশে এক যুবকের লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়।

বিজ্ঞাপন

এদিকে ইরফান আলী তাঁর স্ত্রী আঞ্জুমান আরা ও তাঁদের চার সন্তান নিয়ে উপজেলার সফিপুর পশ্চিমপাড়া এলাকার আহাসান উল্লার বাড়ির ষষ্ঠ তলা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছেন। গত বৃহস্পতিবার ইরফান আলী তাঁর সন্তানদের নিয়ে গ্রামের বাড়িতে যান। সেদিন থেকে আঞ্জুমান আরা তাঁদের ভাড়া বাসায় একা ছিলেন। সোমবার সকালে গ্রামের বাড়ি থেকে তাঁর স্বামী-সন্তান ভাড়া বাসায় ফিরে আসেন। কিন্তু ঘরের দরজা-জানালা বন্ধ দেখতে পেয়ে ডাকাডাকি করলেও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। এতে সন্দেহ হলে তাঁরা ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় তাঁর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, ওই যুবকের মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। তবে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া ওই গৃহবধূ কী কারণে আত্মহত্যা করেছেন, তা বলা যাচ্ছে না। লাশ তাঁর স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন