গাজীপুরের চন্দ্রা থেকে রাজশাহী পর্যন্ত স্বাভাবিক সময়ে যে ভাড়া ৫০০ টাকা, সেই ভাড়া পরিবহনের চালক ও সহযোগীরা চাইছেন দেড় হাজার টাকা।

রাজশাহী এলাকার বাসিন্দা সালাম সরকার বলেন, গাজীপুরের চন্দ্রা থেকে রাজশাহী পর্যন্ত স্বাভাবিক সময়ে যে ভাড়া ৫০০ টাকা, সেই ভাড়া পরিবহনের চালক ও সহযোগীরা চাইছেন দেড় হাজার টাকা। এ কারণে অনেক যাত্রীকে দীর্ঘ সময় স্টেশনে অপেক্ষা করে থাকতে দেখা গেছে। অনেকেই ট্রাক, লেগুনা, পিকআপ, সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে দূরপাল্লার পথ পাড়ি দিচ্ছে। সড়কের শৃঙ্খলা রক্ষায় মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে হাইওয়ে পুলিশ কাজ করছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার গাজীপুরের অধিকাংশ পোশাক কারখানা ছুটি হওয়ার পর থেকে শিল্প–কলকারখানার শ্রমিকসহ নানা শ্রেণি–পেশার মানুষ গ্রামের বাড়িতে ঈদ উদ্‌যাপনের জন্য স্ত্রী–সন্তানদের নিয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে, বাস স্টপেজে অবস্থান নেন। অনেকে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে আবার অনেকে পিকআপ ও ট্রাকে রোদ–বৃষ্টি উপেক্ষা করে নানা দুর্ভোগ আর যানজট মাথায় নিয়ে ছুটে চলেন গন্তব্যে। বিভিন্ন পরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া নিলেও গ্রামের বাড়ি যেকোনো উপায়ে যেতে হবে, সে জন্য অতিরিক্ত ভাড়া দিয়েই চলে গেছেন গন্তব্যে।

শনিবার সকাল থেকে গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা মোড়, ভোগড়া বাইপাস মোড়, কালিয়াকৈরের চন্দ্রা মোড়, টঙ্গী, কোনাবাড়িসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে যাত্রীদের তেমন চাপ লক্ষ করা যায়নি।

শনিবার সকাল থেকে গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা মোড়, ভোগড়া বাইপাস মোড়, কালিয়াকৈরের চন্দ্রা মোড়, টঙ্গী, কোনাবাড়িসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে যাত্রীদের তেমন চাপ লক্ষ করা যায়নি। সড়কে গণপরিবহনের কোনো সংকট নেই। যেসব শ্রমিক ও সাধারণ মানুষ নানা কারণে গত দুই দিনে গাজীপুর ত্যাগ করতে পারেনি, তারা সকাল থেকে মহাসড়ক ও বাসস্ট্যান্ডের দিকে যাত্রা শুরু করেছে।

default-image

গাজীপুর জেলা পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ বলেন, ‘গাজীপুরের গুরুত্বপূর্ণ ও ব্যস্ততম স্থান চন্দ্রা মোড়, মাওনা চৌরাস্তা ও জৈনা বাজার এলাকায় জেলা পুলিশ অবস্থান নিয়ে যানজট নিরসনে কাজ করেছে। লাখ লাখ মানুষকে গাজীপুর থেকে তাদের গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়ার যে চ্যালেঞ্জ ছিল, সেটা আমরা সফলভাবে করতে পেরেছি।’

গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (ট্রাফিক) আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, গত দুই-তিন দিনে লাখ লাখ মানুষ গাজীপুর ছেড়ে গেছে। শনিবার সকাল থেকে গাজীপুরের যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুরের কোনো অংশে এই মুহূর্তে যানজট নেই। তবে বাসস্ট্যান্ডগুলোতে মানুষের ভিড় রয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন