default-image

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভোগড়া এলাকায় অবস্থিত মহিলা, শিশু ও কিশোরী হেফাজতিদের নিরাপদ আবাসন কেন্দ্র (সেফহোম) থেকে পালিয়ে যাওয়া ৭ কিশোরীর খোঁজ ১১ দিনেও মেলেনি। গত ২৪ মার্চ রাতে ১৪ কিশোরী পালিয়ে গেলে তাদের মধ্যে ৭ জনকে উদ্ধার করা হয়। আর সাতজনের কোনো খোঁজ মেলেনি আজ রোববার পর্যন্ত।

কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ফরিদা খানম প্রথম আলোকে বলেন, ‘মেয়েদের সন্ধান তো আগেই পেয়েছি। পুলিশকে ফোন করেছিলাম, তারা বলেছে, হেফাজতের আন্দোলন নিয়ে ব্যস্ত। পর্যাপ্ত পুলিশ তাদের হাতে নেই। তাই এ মুহূর্তে মেয়েদের উদ্ধার করা যাচ্ছে না। আজ আবার থানায় যোগাযোগ করা হলে তারা একই কথা বলছে। তবে আমরা সার্বক্ষণিক পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করছি মেয়েদের উদ্ধার করে হেফাজতকেন্দ্রে ফিরিয়ে আনার জন্য।’

বাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুল ফারুক বলেন, এখনো মেয়েদের উদ্ধার করা যায়নি। তবে তারা কোথায় আছে, সেই সন্ধান পাওয়া গেছে।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, সেফহোম কর্তৃপক্ষ ও পুলিশকে পালিয়ে যাওয়া সাত কিশোরীকে দ্রুত উদ্ধার করতে বলা হয়েছে।

গত ২৪ মার্চ রাতে সেফহোমের তিনতলার জানালার গ্রিল ভেঙে ওড়না বেয়ে ১৪ কিশোরী পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ওই রাতেই জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশন থেকে সাতজনকে আটক করে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন