default-image

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগে ৫৫ জনকে আসামি করে মামলা করেছে পুলিশ। মামলায় ছাত্রদল, যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার চারজন হলেন রূপগঞ্জ মুড়াপাড়া কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক  স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা সোহেল মিয়া, যুবদলের নেতা বাবু ভূঁইয়া, মিলন মিয়া ও  ছাত্রদলের নেতা রাকিব মিয়া।

সোমবার রূপগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোবারক হোসেন বাদী হয়ে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলাটি করেন। মামলায় ৩০ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ২৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, রোববার সন্ধ্যায় ভুলতা সাওঘাট এলাকায় একটি ট্রাক ভাঙচুরের সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে চারজনকে আটক করে।

বিজ্ঞাপন

ভুলতা এলাকায় গাড়ি ভাঙচুরের সময় ওই চারজনকে হাতেনাতে আটক করা হয়েছে দাবি করে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির প্রথম আলোকে বলেন, গ্রেপ্তার সবাই বিএনপির নেতা-কর্মী। গতকালের হরতালের সঙ্গে তাঁদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই, তবে হরতালের পর তাঁরা ভুলতা এলাকায় গাড়ি ভাঙচুর করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তি দাবি করে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা তৈমুর আলম খন্দকার প্রথম আলোকে বলেন, মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলকভাবে বিএনপির নেতা-কর্মীদের ফাঁসানো হয়েছে। এই মামলা অতীতের গায়েবি মামলার ধারাবাহিকতা।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন