default-image

ফরিদপুরের নগরকান্দায় গায়েহলুদের অনুষ্ঠানে যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করায় এক কলেজছাত্রকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে উপজেলার তালমা ইউনিয়নের বিলনালিয়া বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ওই কলেজছাত্রকে শুক্রবার দুপুরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত ওই কলেজছাত্রের নাম মো. কামরুজ্জামান সাব্বির (১৮)। তিনি বিলনালীয়া গ্রামের বাসিন্দা কৃষক মিজানুর রহমানের ছেলে। দুই ভাইবোনের মধ্যে ছোট কামরুজ্জামান। কামরুজ্জামান ফরিদপুর সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

কামরুজ্জামান জানান, বৃহস্পতিবার রাতে পাশের বাড়িতে একটি গায়েহলুদের অনুষ্ঠান চলছিল। ওই অনুষ্ঠানে নাচ-গান চলাকালে কয়েকজন বখাটে তরুণীদের যৌন হয়রানি শুরু করে। তিনি এর প্রতিবাদ জানালে বখাটেরা ওই বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

কামরুজ্জামান আরও জানান, রাত ১২টার দিকে তিনি বাড়ি ফেরার পথে একটি মোটরসাইকেলে করে তিন বখাটে এসে তাঁর গতিরোধ করে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় লাঠি দিয়ে পেটায়। পরে মাথায় ধারালো অস্ত্রের কোপ দিয়ে পালিয়ে যায় তারা।

সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের ছাত্র সংসদের ভিপি মো. নূর হোসেন জানান, কামরুজ্জামানের মাথায় পাঁচটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া তাঁর শরীরের বিভিন্ন জায়গা লাঠির আঘাতে কালো হয়ে গেছে। তিনি বলেন, ঘটনার পর এলাকাবাসী কামরুজ্জামানকে উদ্ধার করে নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে চিকিৎসকের পরামর্শে শুক্রবার দুপুরে তাঁকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নগরকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহেল রানা বলেন, এ বিষয়ে শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত থানায় কেউ কোনো অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য পড়ুন 0