বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের এক সদস্য জানিয়েছেন, তরুণী দীর্ঘদিন ধরে একই বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করতেন। তিনি চোখে স্পষ্ট দেখতে পেতেন না এবং তাঁর বুদ্ধিও কম। তিনি ওই তরুণীকে প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ডও করে দিয়েছিলেন। প্রতিবন্ধী মেয়ের সঙ্গে এমন ঘটনা সত্যিই অন্যায়।

তেঁতুলিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ছায়েম মিয়া বলেন, অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তরুণীর পরিবারের করা স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদনে তাঁকে ৩৪ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা বলা হয়েছে। তরুণীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও আদালতে জবানবন্দি গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন