বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজহারুলকে ইউপি চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেওয়ার সুপারিশ করায় ৬ অক্টোবর দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেন কিরণ মিয়া। আজহারুল সদ্য বিলুপ্ত উপজেলা বিএনপির ১০১ সদস্যের কমিটির ৬৮ নম্বর সদস্য এবং উপজেলা যুবদলের কমিটির সদস্য ছিলেন।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে নাসিরনগর উপজেলার ১৩টি ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ।

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বিকেল চারটায় গণবভনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করেন। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দ্বিতীয় ধাপে চট্টগ্রাম বিভাগের ইউপি নির্বাচনে মনোনীত প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হয়। সেখানে নাসিরনগরের ১৩টি ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীদের নাম প্রকাশ করা হয়। ১৩ জনের মধ্যে ৮ জন বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান এবং ৫ জন নতুন প্রার্থী।

প্রার্থীরা হলেন ভলাকুটে রুবেল মিয়া, গোকর্ণে ছোয়াব আহমেদ, কুন্ডায় চেয়ারম্যান ওয়াস আলী, বুড়িশ্বরে এ টি এম মোজাম্মেল হক সরকার, ধরমণ্ডলে বাহার উদ্দিন চৌধুরী, চাতলপাড়ে শেখ আবদুল আহাদ, হরিপুরে দেওয়ান আতিকুর রহমান ও সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল হাসেম। এই আটজন বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান। এ ছাড়া উপজেলার পূর্বভাগে আক্তার মিয়া, গুনিয়াউক ইউনিয়নে জিতু মিয়া, চাপড়তলায় মনসুর আলী ভূঁইয়া, ফান্দাউকে ফারুকুজ্জামান ফারুক, গোয়ালনগরে কিরণ মিয়া নতুন করে এবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন।


ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি কিরণ মিয়া প্রথম আলোকে বলেন, ‘এমপির সমর্থন বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যানের পক্ষে ছিল। তার মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনাও ছিল। প্রধানমন্ত্রীর কাছে করা আবেদন সুফল নিয়ে এসেছে। আমি মনোনয়ন পেয়ে অত্যন্ত খুশি। কারণ, দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগের রাজনীতি করছি। মনোনয়ন পেয়ে স্থানীয় সাংসদকে ফোন করেছি।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন