জুলিয়ান সরেন বলেন, আজ দুপুরে অভিকে নিয়ে তাঁর মা ঘুমাতে যান। একপর্যায়ে মা ঘুমিয়ে গেলে হামাগুড়ি দিয়ে বাড়ির পাশের পুকুরপাড়ে চলে যায় অভি। এর মধ্যে কোনো এক সময় সে পানিতে পড়ে যায়। বেলা পৌনে তিনটার দিকে শিশুটিকে পুকুর থেকে উদ্ধার করে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে নিয়ে যান তিনি। সেখানে চিকিৎসক অভিকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে মহানন্দা নদীতে গোসল করতে নেমে ডুবে যাওয়ার এক দিন পর আজ দুপুরে সানোয়ার হোসেনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

গোমস্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস বলেন, গতকাল বুধবার বেলা সোয়া দুইটার দিকে সানোয়ার হোসেন চৌডালা ফুটবল মাঠের পাশের নদীতে গোসল করতে নেমে ডুবে যান। স্থানীয় বাসিন্দারা অনেক খুঁজেও তাঁকে উদ্ধার করতে পারেননি। আজ বেলা সোয়া একটার দিকে গোমস্তাপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি দল চৌডালা ইউনিয়নের বালুটুঙ্গী ঘাট থেকে সানোয়ারের লাশ উদ্ধার করে।

ওসি দিলীপ কুমার দাস আরও বলেন, স্থানীয়ভাবে জানা গেছে, সানোয়ার দীর্ঘদিন ধরে মৃগীরোগে ভুগছিলেন। একাধিকবার স্থানীয় কবিরাজের কাছে চিকিৎসাও নিয়েছেন। এ ঘটনায় গোমস্তাপুর থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর (ইউডি) মামলা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন