জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক ব্যক্তি গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছেন। ওই ব্যক্তির রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য আইইডিসিআরে পাঠিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

গতকাল শনিবার রাত ১টার দিকে ওই ব্যক্তি গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি হন।
গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন নিয়াজ মোহাম্মদ জানান, ওই ব্যক্তির রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছে। এ নিয়ে ১৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো নমুনার ফল হাতে আসেনি।
গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিকুর রহমান খান বলেন, ‘আমরা ওই ব্যক্তির পরিবারের সঙ্গে কথা বলেছি। ওই বাড়ির অন্য সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে। তাঁদের কিছু প্রয়োজন হলে ফোনে জানাতে বলেছি। আমরা প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দেব।’
এদিকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিন শেষে গোপালগঞ্জে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন ৫৪ জন। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৬ প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় ১৮১ প্রবাসী এখন হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।


বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0