default-image

গোপালগঞ্জে করোনার উপসর্গ নিয়ে নতুন করে দুজন এবং করোনা পজিটিভ শনাক্ত একজনের মৃত্যু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার ভোররাত তিনটা থেকে সকাল সাতটার মধ্যে তাঁরা মারা যান। করোনা পজিটিভ নিশ্চিত হয়ে নতুন এই একজনসহ এ পর্যন্ত জেলায় করোনায় সংক্রমিত হয়ে ১১ জন মারা গেলেন।

গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন নিয়াজ মোহাম্মদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গতকাল বুধবার গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলিয়া গ্রামের মোতালেব মিয়া (৬৮) এবং একই উপজেলার মানিকদাহ গ্রামের দিপংকর শিরালী (৩৪) গত মঙ্গলবার (৩০ জুন) সর্দি, জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছিলেন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মোতালেব মিয়া ও সকাল সাতটায় দিপংকর শিরালী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তাঁদের শরীরে করোনাভাইরাস ছিল কি না, তা পরীক্ষা করার জন্য দুজনের মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

সিভিল সার্জন আরও বলেন, আজ ভোররাত তিনটার দিকে শহরের মৌলভীপাড়ার বাড়িতে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মো. লুৎফর রহমান খান (৭৫) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছেন। এক সপ্তাহ আগে তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষা করা হলে রিপোর্ট ‘পজিটিভ’ আসে। তারপর থেকে তিনি নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের একটি প্রশিক্ষিত দল মো. লুৎফর রহমান খানের লাশ দাফন করেছে। তাঁর বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে এবং পরিবারের সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0