বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন গোলাপগঞ্জের ফুলবাড়ি গ্রামের লাল মিয়া (২৭), গোলাপগঞ্জ সদরের ফাজিলপুর গ্রামের বাহার উদ্দিন (৪০) ও হাজীপুরের জাকারিয়া আহমদ (৩০)। অন্য দুজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি। লাল মিয়া, বাহার উদ্দিন ও অজ্ঞাতনামা একজন গোলাপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং জাকারিয়া আহমদ ও অজ্ঞাতনামা আরেকজন সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আজ সকাল ১০টার দিকে বিয়ানীবাজারগামী একটি বাসের সঙ্গে সিলেটগামী সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়েমুচড়ে যায়। অটোরিকশার ছয়জন যাত্রী আহত হন। পরে খবর পেয়ে গোলাপগঞ্জ থানার পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজন অটোরিকশার কয়েক যাত্রীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা। দুর্ঘটনায় আহত আরও তিনজনকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অপর দুজনের মৃত্যু হয়।

সড়ক দুর্ঘটনার বিষয়ে গোলাপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন, ঘটনাস্থল থেকে বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা জব্দ করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘটনার পর বাসের চালক পালিয়ে গেছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন