বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওই বাড়ির বাসিন্দারা জানান, প্রতিদিনের মতো গতকাল সন্ধ্যায় গোয়ালঘরে কয়েল জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিছুক্ষণ পর হঠাৎ গোয়ালঘরে আগুন লাগে। মুহূর্তে ওই আগুন পুরো বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর স্থানীয় লোকজন আগুন নেভানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নেভাতে সক্ষম হন। এ সময় গোয়ালঘরে আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া দুটি ছাগল উদ্ধার করা হয়।

রণজিৎ ঘোষ বলেন, আগুনে তাঁর গোয়ালঘর ও দুটি ঘরের আসবাবপত্র পুড়ে গেছে। এতে দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এদিকে আগুনের খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসেন আক্কেলপুর পৌরসভার মেয়র শহীদুল আলম চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে তদারক করেছি। রাতেই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সহায়তা দিয়েছি।’

আক্কেলপুর ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান বলেন, রণজিৎ ঘোষের বাড়ির গোয়ালঘরের কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। প্রায় এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন