বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. রফিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও নৌকার প্রার্থী আমজাদ হোসেন নৌকার বিলবোর্ড স্থাপন করে সেখানে আলোকসজ্জা করেছেন। এটিও আচরণবিধি লঙ্ঘনের মধ্যে পড়ে। এ ঘটনায় রাত সাড়ে নয়টায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আমজাদ হোসেনকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

রফিকুল ইসলাম জানান, রাত আটটার পর থেকে সব ধরনের নির্বাচনী প্রচারণা নিষেধ থাকলেও কেউ কেউ তা মানছেন না বলে অভিযোগ ছিল। অভিযোগ পাওয়ার পর গতকাল রাতে ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী আবদুর রহমান রাত সাড়ে আটটার দিকে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে অনেক কর্মী-সমর্থক নিয়ে মিছিল ও শোডাউন দিচ্ছিলেন। এতে তাঁকেও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

জানতে চাইলে আমজাদ হোসেন বলেন, ‘ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের বিপরীত পাশে পুরোনো একটি পোস্টারে স্থানীয় কেউ অতি উৎসাহী হয়ে এটা করতে পারে। বিষয়টি আমার জানা ছিল না। ওই সময় নির্বাচনী প্রচারণায় আমি অন্যত্র ছিলাম। তবে আচরণবিধি লঙ্ঘন হয়, এমন কাজ কখনোই আমি করি না বা করার চেষ্টাও করি না।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন