বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদের সামনে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন শেষে কাউন্সিলরের কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল উপজেলা পরিষদ চত্বর ঘুরে আবার মহাসড়কে এসে শেষ হয়। এতে ওমর আলী মল্লিকসহ তাঁর পরিবার, স্থানীয় আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী ও এলাকার কয়েক শ তরুণ অংশ নেন।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন ভুক্তভোগী ওমর আলী মল্লিক, ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর শাহজাহান শেখ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক হিরু মৃধা, উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম ইত্তেহাদ সিয়াম, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকাশ সাহা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর কাঠমিস্ত্রি হিসেবে কাজ করতেন। তাঁর বিরুদ্ধে প্রতারণা, জমি দখল, শিশু অপহরণ, ছিনতাই, ডাকাতিসহ নানা ধরনের মামলা রয়েছে। কাঠমিস্ত্রি থেকে তিনি এখন লাখ টাকার মালিক হয়েছেন। তাঁকে দ্রুত অপসারণ করা না হলে ৩ নম্বর ওয়ার্ডের জনসাধারণকে নিয়ে আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

জমি দখলের বিষয়ে মানববন্ধনে ওমর আলী মল্লিক বলেন, তাঁর পরিবার নিয়ে এখন রাজবাড়ী থাকেন। ঠিকমতো চলাচল করতে পারেন না। দখলের বিষয়ে তিনি সুষ্ঠু সমাধান চান। কাউন্সিলর শাহিন তাঁর সঙ্গে প্রতারণা করেছেন।

অভিযোগ প্রসঙ্গে কাউন্সিলর শাহিন মোল্লা বলেন, তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে। যাঁরা অভিযোগ করেছেন, তাঁরাই জমির মালিকের সঙ্গে প্রতারণা করছেন। কৌশলে ওমর আলীকে ব্যবহার করে জমি দখলের পাঁয়তারা করছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন