default-image

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে মহাসড়কে মাহিন্দ্র উল্টে বিল্লাল হোসেন মোল্লা (৪৮) নামের এক মুদিদোকানি নিহত হয়েছেন। তিনি গোয়ালন্দ পৌরসভার দেওয়ান পাড়ার মুন্তাজ আলী মোল্লার ছেলে। একটি বিয়ের বউভাত অনুষ্ঠান শেষে তিনি মাহিন্দ্র করে বাড়ি ফিরছিলেন। আজ শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের উপজেলার মকবুলের দোকান নামের এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় মাহিন্দ্রে থাকা চালকসহ অন্তত সাতজন আহত হন।

নিহত বিল্লাল মোল্লার চাচাতো বড় ভাই আলাউদ্দিন মোল্লা বলেন, বিল্লাল বাড়ির কাছে মুদি ব্যবসা করতেন। এলাকার গোয়ালন্দ বাসস্ট্যান্ড জামে মসজিদের ইমাম আবু তায়েবের বউভাত অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তাঁরা সবাই আজ দুপুরে রাজবাড়ী সদর উপজেলার নিমতলায় যান। সেখানে বিল্লালসহ পরিবারের সবাই দাওয়াত খেয়ে যার যার মতো বাড়ির উদ্দেশে রওনা করেন। বিল্লাল মাহিন্দ্র করে গোয়ালন্দে ফিরছিলেন। পথে মাহিন্দ্রটি দুর্ঘটনার শিকার হয়। বিয়ের দাওয়াত খেয়ে বিল্লাল আর বাড়ি ফিরতে পারেননি।

আজ শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের উপজেলার মকবুলের দোকান নামের এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় মাহিন্দ্রে থাকা চালকসহ অন্তত সাতজন আহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মকবুলের দোকান নামের এলাকায় যাত্রীবাহী মাহিন্দ্রটি পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে একটি দ্রুতগতির মোটরসাইকেল আসে। এ সময় সেটিকে অতিক্রম করতে গিয়ে মহাসড়কের ডানে মাহিন্দ্রটি উল্টে সড়কের পাশে থাকা গর্তে পড়ে গেলে মাহিন্দ্রের একটি রড বিল্লাল মোল্লার মাথায় ভেদ করে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় মাহিন্দ্রের অন্যান্য যাত্রীরাও কমবেশি আহত হয়েছেন।

গোয়ালন্দ মোড় আহ্লাদিপুর হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক মো. আলাউদ্দিন বলেন, মাহিন্দ্রটি আটক করা হয়েছে। তবে চালক পলাতক। পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন