default-image

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলায় আগুনে পুড়ে একসঙ্গে মা ও মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার মধ্যরাতে উপজেলার ভেলানগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মারা যাওয়া দুজন হলেন সালেহা আক্তার (৩৫) ও তাঁর মেয়ে ফারজানা আক্তার (১০)। ভেলানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ছিল ফারজানা। আর সালেহা কুয়েতপ্রবাসী মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী।

সালেহা বেগমের শ্বশুর আবদুল আউয়াল ভূঁইয়া বলেন, ঘরে সবাই ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত সাড়ে ১২টার দিকে হঠাৎ ঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। সালেহা আগুন লাগার বিষয়টি বুঝতে পেরে তাঁর মা ফজিলত বেগম, নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে মাহফুজা আক্তার ও পাঁচ বছরের ছেলে আরাফাতকে ঘুম থেকে জাগিয়ে ঘরের বাইরে রেখে আসেন। ঘুমন্ত মেয়ে ফারজানাকে আনার সময় তিনি আর ঘরে থেকে বের হতে পারেননি। পরে মা-মেয়ে আগুনে পুড়ে মারা যায়। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
default-image

প্রতিবেশী গৃহবধূ নাজমা আক্তার বলেন, আগুন লাগার খবর পেয়ে একপর্যায়ে গ্রামের মসজিদ থেকে মাইকিং করে গ্রামবাসীকে জানানো হয়। গ্রামবাসী ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলে আশপাশের বসতঘরগুলো রক্ষা পায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের দাউদকান্দি ইউনিটের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

দাউদকান্দি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হারুনুর রশিদ বলেন, আজ বুধবার ভোর পাঁচটায় মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন