বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় মেয়েটির মা বাদী হয়ে সোমবার রাতে লোহাগাড়া থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। মেয়েটির মা বলেন, ‘জাহাঙ্গীর আলম আমাদের প্রতিবেশী। তিনি খারাপ প্রকৃতির লোক। চকলেটের প্রলোভন দেখিয়ে আমার মেয়েটির তিনি সর্বনাশ করেছেন। তা ছাড়া মেয়ের চিকিৎসা করাতে নিয়ে যাওয়ার সময় বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন।’

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাকের হোসাইন মাহমুদ প্রথম আলোকে বলেন, মেয়েটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান–স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন। গ্রেপ্তার যুবক জাহাঙ্গীর আলমকে আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন