বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাদীর আইনজীবী গোলাম মুরাদ প্রথম আলাকে বলেন, গ্রাহক মোর্শেদ শিকদার, মাহমুদুল হাসান খান ও নুরুল আবছারের সাড়ে ১১ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলাটি হয়েছে। ই-অরেঞ্জ সারা দেশে লাখ লাখ গ্রাহকের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। আদালত পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, চলতি বছরের ২৭ মে থেকে বিভিন্ন সময় পণ্য ক্রয়ের জন্য ই–অরেঞ্জকে টাকা দেন গ্রাহকেরা। কিন্তু নির্দিষ্ট সময় পার হলেও পণ্য সরবরাহ করা হয়নি। টাকা নেওয়ার পর ই-অরেঞ্জ কর্তৃপক্ষ ফেসবুকে নোটিশের মাধ্যমে বিভিন্ন সময় গ্রাহকদের পণ্য সরবরাহের আশ্বাস দেয়, কিন্তু তারা পণ্য সরবরাহ না করে দেশে প্রায় ১ লাখ গ্রাহকের ১ হাজার ১০০ কোটি টাকা আত্মসাৎ করে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়। আত্মসাৎ করা এ টাকার মধ্যে চট্টগ্রামের ৩ গ্রাহকের সাড়ে ১১ লাখ টাকাও রয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন