গত জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত উন্মুক্ত নালা ও খালে পড়ে বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রী, সবজি বিক্রেতাসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে। নগরের মুরাদপুরে চশমা খালে ছালেহ আহমেদের তলিয়ে যাওয়ার ঘটনায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষকে দায়ী করেছে মন্ত্রিপরিষদের নির্দেশে গঠিত তদন্ত কমিটি।

ইয়াসিরের বন্ধু নাজমুল নীরব বলেন, তাঁরা চার বন্ধু মঙ্গলবার রাতে কাজীর দেউড়ি থেকে হেঁটে সিআরবিতে যাচ্ছিলেন। কিন্তু স্টেডিয়ামের জিমনেসিয়াম–সংলগ্ন নালায় পড়ে যান ইয়াসির। নালার ওই অংশে স্ল্যাব ছিল না। আবার কোনো সতর্কতামূলক নির্দেশনা ছিল না। নালায় পড়ে ইয়াসিনের বাঁ পায়ের হাড় ভেঙে গেছে।

ইয়াসিরের বাড়ি হালিশহরের চুনা ফ্যাক্টরি এলাকায়। তিনি চট্টগ্রাম কমার্স কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। নালায় পড়ে ছাত্রের পা ভাঙার বিষয়টি শুনেছেন বলে জানান স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র মো. গিয়াস উদ্দিন। তিনি বলেন, নালার ওপর স্ল্যাব বসানোর জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন