বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদুল হক বলেন, কনস্টেবল আজমীর দায়িত্বরত ছিলেন। কিন্তু তিনি কাউকে না জানিয়ে অনুপস্থিত থাকেন। ইয়াবাসহ ধরা পড়ার পর বিষয়টি জানা যায়।

পুলিশ সূত্র জানায়, নম্বরবিহীন একটি মোটরসাইকেল নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় যাচ্ছিলেন আজমীর। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে খবর পেয়ে কুমিল্লা ডিবি পুলিশ তাঁকে আটক করে। তাঁর কাছ থেকে ১৪ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও আদালত সূত্র জানায়, চট্টগ্রামে দুই দশকে (২০০১ থেকে ২০২১) পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা হয়েছে ৩৮টি। এর মধ্যে ১৯টি ইয়াবাসংক্রান্ত।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন