default-image

চট্টগ্রাম থেকে নোয়াখালীর হাতিয়া যাওয়ার পথে পণ্যবোঝাই একটি ট্রলার ঝড়ের কবলে পড়ে ডুবে গেছে। আজ বৃহস্পতিবার ভোর পৌনে পাঁচটার দিকে বঙ্গোপসাগরের হাতিয়া সীমানায় এই ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটে।

ডুবে যাওয়া ট্রলারটির নাম আল্লাহরদান-১। ট্রলারটিতে কোটি টাকা মূল্যের বিভিন্ন পণ্য ছিল বলে ট্রলারমালিক জানিয়েছেন। তবে এই ট্রলারডুবির ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

ট্রলারটির মালিক হাতিয়া উপজেলা সদরের ওছখালির বাসিন্দা মো. হেলাল প্রথম আলোকে বলেন, বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রামের ফিশারিঘাট থেকে তাঁর প্রায় আড়াই লাখ টাকা মূল্যের মুদি পণ্যসহ হাতিয়ার ওছখালির বিভিন্ন ব্যবসায়ীর সিমেন্ট, রড ও টিন বোঝাই করে ট্রলারটি (আল্লাহরদান-১) হাতিয়ার উদ্দেশে রওনা হয়। ট্রলারটি আজ ভোর পৌনে পাঁচটার দিকে বঙ্গোপসাগরের চট্টগ্রাম সীমানা পার হয়ে হাতিয়া সীমানায় প্রবেশের কিছুক্ষণ পর আকস্মিক ঝড়ের কবলে পড়ে। এতে ট্রলারের ইঞ্জিনে ত্রুটি দেখা দেয়। এরপর আরও কিছু সময় সারেং ট্রলারটি এগিয়ে নিতে থাকেন। একপর্যায়ে ট্রলারটি পানিতে ডুবে যায়।

বিজ্ঞাপন

ডুবে যাওয়ার সময় ট্রলারের সারেং মো. আজমি মুঠোফোনে বিষয়টি ট্রলারমালিক মো. হেলালকে জানান। পরে সারেংসহ ট্রলারে থাকা আটজন লাইফ জ্যাকেট পরে সাগরে ভাসতে থাকেন। পরে সাগরে থাকা অন্য জেলেরা তাঁদের জীবিত উদ্ধার করেন। আজ সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ট্রলারের সারেংসহ মাঝি-মাল্লারা হাতিয়ায় ফিরে আসেননি। তাঁরা ফিরে এলে ঘটনার বিস্তারিত জানা যাবে।

হাতিয়া নৌ-পুলিশের নলচিরা ফাঁড়ির পরিদর্শক (ইনচার্জ) আকরাম উল্যাহ প্রথম আলোকে বলেন, চট্টগ্রাম থেকে হাতিয়া আসার পথে ট্রলার ডুবির কোনো ঘটনা তাঁদের জানা নেই। একই কথা বলেন কোস্টগার্ডের হাতিয়া স্টেশনের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট বিশ্বজিৎ বড়ুয়াও। তিনি আজ দুপুরে বলেন ‘মালিকপক্ষকে বলেন, আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে, তখন আমরা বিষয়টি দেখব।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন