বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ বৃহস্পতিবার তাঁদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই নিশ্চিত হলে সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন বলে ঘোষণা দেন সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন। সাধারণ সদস্য পদে ১ নম্বর ওয়ার্ডে দুলাল মিয়া, ২ নম্বর ওয়ার্ডে মনির শেখ, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে সফিক রাঢ়ী, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে হারেজ মজুমদার, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে হারুনুর রশিদ, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে শাহ আলম মাঝি, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে হাবিবুর রহমান, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ফারুক মাঝি ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে জহির হাওলাদার নির্বাচিত হয়েছেন। সংরক্ষিত ১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডে যথাক্রমে হোসনেয়ারা বিউটি, সংরক্ষিত ৪,৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে হাসিনা বেগম এবং সংরক্ষিত ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে সিমা আক্তার নির্বাচিত হয়েছেন।

নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২৮ ফেব্রুয়ারি এই ইউনিয়নে নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। এর আগে ২০১১ সালে এই ইউনিয়নে মো. সেলিম খান চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। পরে ২০১৬ সালে নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও সীমানা জটিলতা মামলার কারণে দীর্ঘদিন নির্বাচন স্থগিত থাকে। গত ৩০ জানুয়ারি মো. সেলিম খানকে তৃণমূলের সমর্থনে কেন্দ্র থেকে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ঘোষণা করা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন