default-image

চাঁদপুরে প্রথম ধাপে ৭ হাজার ২০০ ভায়াল কোভিড-১৯-এর ভ্যাকসিন এসে পৌঁছেছে। রোববার সন্ধ্যায় চাঁদপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ে বেক্সিমকোর একটি ফ্রিজআপ ভ্যানে করে ছয়টি কার্টনভর্তি ওই ভ্যাকসিনগুলো আনা হয়। পরে তা সিভিল সার্জন মো. সাখাওয়াত উল্লাহর কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বেক্সিমকোর আঞ্চলিক বিক্রয় নির্বাহী কর্মকর্তা নিখিল রঞ্জন সাহা বলেন, ‘পুলিশের সহযোগিতায় চাঁদপুরে কোভিড-১৯-এর ভ্যাকসিন এনে পৌঁছে দিয়েছি।’

সিভিল সার্জন মো. সাখাওয়াত উল্লাহ বলেন, চাঁদপুরে করোনার ভ্যাকসিন সংরক্ষণের জন্য জেলা ইপিআই ভবনে বিশেষ কোল্ড স্টোরের ব্যবস্থা করা হয়। প্রথম ধাপে এ জেলার জন্য বরাদ্দ ৭ হাজার ২০০ ভায়াল ভ্যাকসিন এসে পৌঁছেছে। প্রতিটি ভায়াল থেকে ১০ জন করে মোট ৭২ হাজার জনকে এই ভ্যাকসিন দেওয়া যাবে।

বিজ্ঞাপন

ভ্যাকসিনটি প্রথমে ফ্রন্ট লাইনের মানুষেরা পাবেন। পরে সরকার নির্দেশিত অনুযায়ী সবাইকে দেওয়া হবে। এ জন্য স্থানীয় পর্যায়ে টিকা প্রদানে নিয়োজিত স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

ভ্যাকসিন প্রদান অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. আসাদুজ্জামান, সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাজেদা বেগম পলিন, চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আরএমও সুজাউদ্দৌলা রুবেলসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন