আজ মঙ্গলবার সকালে চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে ‘চাঁদপুর শহর সংরক্ষণ প্রকল্পের পুনর্বাসনের লক্ষ্যে বিস্তারিত সমীক্ষা’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা বলেন। পাউবোর উদ্যোগে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান আইডব্লিউএম ও সিইজিআইএস এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

দীপু মনি বলেন, ‘গত কয়েক বছরের ভাঙনের সময় দিন ও রাতে প্রশাসনের লোকজনকে নদী পাহারা দিতে হয়েছে। এমন মুহূর্তে শ্রমিকও পাওয়া যায় না। সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকার প্রকল্প পাস হওয়ার আগেই শহরকে রক্ষা করতে হবে। কারণ, এই শহর রক্ষার সমীক্ষা রিপোর্টসহ যাবতীয় কাজ শেষ হতে সময় লাগবে। আমি মনে করি, ইতিমধ্যে দেশের অন্য যেসব স্থানে নদীভাঙন রোধে কাজ শুরু হয়েছে, তার চাইতে চাঁদপুরে আগে কাজ শুরু করা প্রয়োজন ছিল।’

জেলা প্রশাসক কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে অতিথি হিসেবে ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব কবির বিন আনোয়ার। সভায় চাঁদপুর শহর সংরক্ষণ প্রকল্পের বিষয়ে সমীক্ষা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন সিইজিআইএসের নদী প্রকৌশল বিভাগের পরিচালক সরোয়ার জাহান ও প্রকৌশলী মোতালেব হোসেন। কর্মশালায় পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন